• বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

জামাত শিবিরের হামলা ; মহেশপুরে আ’লীগ নেতার বাড়ী ভাংচুর,আহত-৫

Reporter Name / ৫৬ Time View
Update : বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১

সেলিম রেজা,মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের মহেশপুরে বসত ভিটার সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ জামাত শিবিরের হাতে আহত হয়েছে আ’লীগ পরিবারের ৫’জন সদস্য।
আহতরা হলেন,উপজেলার নেপা ইউনিয়ন আ’লীগের প্রচার সম্পাদক কাঞ্চনপুর-হুদোপাড়া গ্রামের কুদরত আলীর পুত্র আনিসুর রহমান(৫৪),আনিসুর রহমানের পুত্র ছাত্রলীগ নেতা আশরাফ আলী সবুজ(২০),মৃত বদর উদ্দিনের পুত্র ও আনিসুর রহমানের ভাতিজা রুহুল আমিন (৬০),ও আলী হোসেন (৫৫)।
স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এই বিষয়ে আনিসুর রহমান বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে ওইদিনই থানায় একটি মামলা করেন।
এজাহার ভুক্ত আসামীরা হলেন,স্থানীয় জামাত শিবির নেতা কর্মী,একই গ্রামের প্রতিবেশী মৃত রবিউল হোসেনের পুত্র,১/আলাউদ্দিন(৩০),২/কামাল উদ্দীন(৩৫),৩/ বাবুল আক্তার(৪০), ৪/ খালিদ(৩৮),৫/ হাসান(২৮),৬/ আব্দুর রহিম (৩২),ফজলুল হকের পুত্র ৭/রেজাউল ইসলাম (৩৫),৮/ মোস্তাক(৩০),৯/ মৃত আশরাফ আলীর পুত্র আব্দুল গফফার(৪০), আব্দুল গফফারের পুত্র ১০/ সাব্বির হোসেন(২৮), ১১/ সাদ্দু(২৫), মৃত আব্দুল জব্বারের পুত্র মোজাফফর (৪৮)।
জানাযায়, উপজেলার নেপা ইউপির হুদোপাড়া গ্রামের আ’লীগ নেতা আনিসুর রহমানের প্রতিবেশী উক্ত আসামি জামাত শিবির নেতাকর্মীরা বসত ভিটার সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রায় সময় প্রাননাশের হুমকি দিয়ে আসছিলো।

আ’লীগ নেতা আনিসুর রহমান বলেন,গত ১৫ দিন আগে আমার বাড়িতে মিস্ত্রি দিয়ে একটি পাকা ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করি।মিস্ত্রিরা ঘরের ভিট গাথা শেষ করে দেওয়াল গাথার কাজ শুরু করেছে।গত ২৬-০৪-২০২১ইং তারিখে দুপুরে উক্ত আসামিরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে সংঘবদ্ধহয়ে হেসুয়া, দা, শাবল, লোহার রড ও লাঠি নিয়ে আমার বাড়িতে এসে মিস্ত্রিদের কাজে বাঁধ দেয়।মিস্ত্রীরা আমাকে ডাকলে আমি ঘর থেকে বেরহয়ে আসলে আসামীরা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং ঘর করতে বাঁধা দেয় আমি প্রতিবাদ করলে আসামীরা আমাকে হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র দিয়ে আগাত করে।আমার ডাক চিৎকারে আমার ছেলে ও ভাই ভাতিজারা ছুটে আসলে তাদেরকেও এলোপাতাড়ি আঘাত করে আহত করে।

এবং ঘরের দেয়াল ভেঙ্গে ফেলে দেয়।এতে আমার প্রায় লক্ষাধীক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।আমার ডাক চিৎকারে ছুটে আসা প্রত্যক্ষদর্শীর হলেন,একই গ্রামের সিরাজুল মন্ডলের পুত্র ১/ শফিকুল ইসলাম (৪৫),নওশের আলীর পুত্র ২/আব্দুল কুদ্দুস (৩৫),৩/ইউনুস আলী(৩০),আব্দুল আজিজের পুত্র মাসুদুর রহমান (২৫)। এরা আসলে আসামীরা আমাদের আহত করে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়।স্থানীয়রা আমাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।রুহুল আমিনের শারীরিক অবস্থা অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

ঘটনার বিষয়ে আসামিদের বাড়িতে জানতে গেলে তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি।
এই বিষয়ে মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেন,এই ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে,আসামিদের ধরার অভিযান চলছে।
আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগী আহত আ’লীগ পরিবারটি।

এম জি আর এ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
ছবি ও নিউজ কপি করা নাজমুলের নিসেদ