• বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৩২ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

তিতাসে বিকাশ ব্যবসায়ীকে হত্যার চেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা

Reporter Name / ৬ Time View
Update : মঙ্গলবার, ৬ এপ্রিল, ২০২১

হালিম সৈকত,কুমিল্লা :
কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় মজিদপুর ইউনিয়নে

ছিনতাইয়ের ঘটনায় থানায় অভিযোগ করায় ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে ভিকটিম মোঃ দ্বীন ইসলাম সাগর নিজেই। ৪ এপ্রিল ২০২১ বিকালে তিতাস থানায় মামলাটি করা হয়।  তিতাস থানার মামলা নং ০৩। মামলার ধারাগুলো হলো, ১৪৩/৩৪১/ ৪৪৮/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৭৯/৩৮০/৫০৬ পেনাল কোর্টে রুজু করা হয়েছে।

আসামীরা হলো বালুয়াকান্দি গ্রামের আঃ মালেকের ছেলে রবি উল্লাহ (৪৫), রবিউল্লাহর ছেলে মোঃ সোহেল মিয়া (২০),  মোঃ ইব্রাহীম প্রকাশ ইবু (৪০),  মোঃ মোস্তফা (৩৫),  মোঃ আল আমিন (৩৮),  রবিউল্লাহর স্ত্রী মোসাঃ শাহিনা আক্তার (৩৮) সহ আরও অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জন।

এই দিকে,  রবিউল্লাহর স্ত্রী জানান,আমার স্বামী আজগর মিয়ার বাড়ীতে ছিল খবর পেয়ে শাহজাহান,সুমন,মারুফ, জুয়েল, শাহআলমসহ ২০/২৫ জন আমার স্বামীকে ধরতে আসে, না পেয়ে আমার বাড়ীতে এসে ঘরে প্রবেশ করে আলমারি  ভেঙে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে সব নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, আসামি রবিউল্লাহকে এলাকার জনগণ ধরতে ধাওয়া করলে রবিউল্লাহ পালিয়ে যায়। তবে লুটপাটের ঘটনাটি সঠিক নয় বলে দাবী করেন তারা।

এই বিষয়ে ভিকটিম ও মামলার বাদী  মোঃ দ্বীন ইসলাম সাগর বলেন,  আমি তিতাস উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি।  আমার আত্মীয় স্বজন কেউ বাড়িতে নেই।

ছোট ভাই প্রবাসে থাকে।  তাহলে তাদের বাড়িতে কে হামলা করলো?  তারা আমাদের লোকদের ফাঁসাতে নিজেরাই পরিকল্পিতভাবে তাদের ঘর বাড়ি ভাংচুর করেছে।  বিষয়টা অনেকটা শাক দিয়ে মাছ ঢাকার মতো।

এই দিকে স্থানীয় বাসিন্দা  মুসা জমাদার,  আবুল কাসেম সরকার, সিদ্দিকুর রহমানসহ আরও অনেকে বলেন,রবিউল্লাহকে ধরতে গিয়েছিল এটা সঠিক কিন্তু লুটপাটের ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। তারা নিজেদের ঘর নিজেরাই ভাংচুর করে।

উল্লেখ্য গত ২ এপ্রিল দ্বীন ইসলাম সাগরের কাছ থেকে  রবিউল্লাহ গংরা ৫০০০০/ টাকা ছিনতাই করে।  এই বিষয়ে থানায় জিডি করলে পুলিশ তদন্ত করতে যায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রবিউল্লাহ বাহিনী দ্বীন ইসলাম সাগরের বিকাশ দোকান ভাংচুর ও লুটপাট করে ৩ এপ্রিল সকাল ৮ টায় ।  এবং ৫,৫৫,০০০/ টাকা নিয়ে যায়। এবং সাগরকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে মারাত্নক জখম করে। বর্তমানে সে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পরের দিন ৪ এপ্রিল তিতাস থানায় ভিকটিম একটি মামলা দায়ের করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

ভিজিটর

93
Live visitors

দৈনিক ভিজিটর

355
Visitors Today

টোটাল ভিজিটর

6819
Total Visitors
You cannot copy content of this page