• বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

পৃথিবীতে আনা হলো গ্রহাণুর নমুনা

Reporter Name / ২৪ Time View
Update : বুধবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০২০

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক :
মহাকাশ গবেষণার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো গ্রহাণু থেকে বড় পরিমাণে মাটি ও পাথর সংগ্রহ করে তা পৃথিবীতে নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছে জাপান। দেশটির মহাকাশ সংস্থা (জাক্সা) জানিয়েছে, তাদের ঐতিহাসিক গ্রহাণু অভিযান সফল হয়েছে। গ্রহাণু জয় করে সম্প্রতি পৃথিবীতে ফিরে আসা হায়াবুসা-টু মহাকাশ যানের একটি ক্যাপসুল খুলে তাতে গ্রহাণু থেকে সংগ্রহ করা মাটি ও পাথর মিলেছে।

রাইয়ুগু নামের গ্রহাণু থেকে নমুনা সংগ্রহ করে গত ৬ ডিসেম্বর অস্ট্রেলিয়ার উমেরা’র মরুভূমিতে নিরাপদে অবতরণ করে জাপানের হায়াবুসা-টু মহাকাশ যানের ৩টি ক্যাপসুল। গত ১৪ ডিসেম্বর জাপানের বিজ্ঞানীরা একটি ক্যাপসুল খোলার পর তার ভেতর গ্রহাণুটির কালো পাথর ও মাটি পেয়েছেন।

যেসব পদার্থ দিয়ে সৌরজগতের সৃষ্টি হয়েছিল, সেগুলোর যে ক’টি এখনো টিকে আছে তার একটি হচ্ছে এই রাইয়ুগু নামের গ্রহাণু। শুধু তাই নয়- মহাশূন্যের গভীর থেকে (ডিপ স্পেস) এই প্রথম বড় পরিমাণে মাটি-পাথর পৃথিবীতে নিয়ে আসা হলো। এসব নমুনা বিজ্ঞানীদেরকে সৌরজগতের গঠন সম্পর্কে মূল তথ্য জানতে সহায়তা করবে। বাকি দুটো ক্যাপসুলেও নমুনা রয়েছে। সেগুলোও খুব শিগগির খুলবেন বিজ্ঞানীরা।

রাইয়ুগু গ্রহাণু থেকে নমুনা সংগ্রহের উদ্দেশ্যে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে হায়াবুসা-টু মহাকাশ যান উৎক্ষেপণ করে জাপান। চার বছর পর ২০১৮ সালের জুন মাসে মহাকাশযানটি রাইয়ুগুতে পৌঁছাতে সক্ষম হয়। এক কিলোমিটার চওড়া এই গ্রহাণুর ওপর ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে অবতরণ করে এবং সংগ্রহ করে বিশুদ্ধ মহাজাগতিক পদার্থের কণা। এ ধরনের এক কিলোমিটার ব্যাসার্ধের গ্রহাণুকে বলা হয় পৃথিবীর কাছের গ্রহাণু বা ‘নিয়ার আর্থ অ্যাস্ট্রয়েড’, কারণ এর কক্ষপথ পৃথিবীর কক্ষপথের মধ্যে পড়ে।

রাইয়ুগু গ্রহাণু আবিষ্কৃত হয় ১৯৯৯ সালে। এটি সি-টাইপ গ্রুপের গ্রহাণু। যেসব গ্রহাণুতে কার্বনের পরিমাণ অত্যাধিক তারা এই গ্রুপের অন্তর্ভুক্ত। এগুলোকে সৌরজগতের প্রাচীন গ্রহাণু হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এ ধরনের গ্রহাণুতে প্রচুর পরিমাণে পাথর আর খনিজ থাকে। মনে করা হয়, সৌরমণ্ডলের সৃষ্টির সময়কার এগুলো। ফলে বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস, এসব পাথর আর খনিজের নমুনাগুলো ব্যাখ্যা করতে সাহায্য করতে পারে যে, পৃথিবীতে কিভাবে পানির উদ্ভব হয়েছিল। এছাড়াও খুলতে পারে সৌরজগতের আরো কিছু ‘আদি’ রহস্যের জট।

এদিকে গ্রহাণু নিয়ে নাসার একটি মহাকাশ অভিযানও চলমান রয়েছে। নাসার ওসিরিস-আরইএক্স মহাকাশ যানের বেন্নু নামক গ্রহাণু থেকে নমুনা নিয়ে ২০২৩ সালে পৃথিবীতে ফেরার কথা রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
ছবি ও নিউজ কপি করা নাজমুলের নিসেদ