• সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

রাজশাহীতে পুলিশ ট্রেনিং স্কুলে ৫ম ব্যাচের উদ্বোধন

Reporter Name / ২০ Time View
Update : শনিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার মোঃ পাভেল ইসলাম :
রাজশাহীতে পুলিশের ট্রেনিং স্কুলে Training on “Firing of Arms” (৫ম ব্যাচ) এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ (০৯ জানুয়ারি) শনিবার সকাল ১০ টার দিকে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে Training on “Firing of Arms” (৫ম ব্যাচ) এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন রাজশাহীর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক। এই কোর্সে ৫ দিন ব্যাপি ৫০ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করেন।

প্রথমেই পুলিশ কমিশনার মহোদয় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং বঙ্গবন্ধুর আজীবন লালিত স্বপ্ন সোনার বাংলা গড়ার সাথে একাত্ম হয়ে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখতে গিয়ে পুলিশ কমিশনার বলেন, বাংলাদেশের প্রতিটা ইঞ্চি নিরাপদ রাখতে বাংলাদেশ পুলিশ অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। মাননীয় আইজিপি মহোদয় আধুনিক পুলিশের রূপকার। Hands Free পুলিশিং, Tactical বেল্ট প্রচলনের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশ আধুনিকতার যুগে প্রবেশ করেছে।

পুলিশ কমিশনার বলেন, তিনি ২০০৬ সালে যখন কসোভো মিশনে ছিলেন সেখানে আমেরিকা ও ইউরোপের পুলিশ দেখেছেন তাদের Gesture ও posture ছিলো দেখার মত। আজ বাংলাদেশ পুলিশ সে যুগে প্রবেশ করেছে। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে স্মার্ট পুলিশ হিসেবে দেশবাসীর সামনে আরএমপিকে তিনি উপস্থাপন করতে চান।

তিনি আরও বলেন, বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ও বাংলাদেশ পুলিশকে যুগোপযোগী করার জন্য বাংলাদেশ পুলিশের আধুনিকায়ন চলছে। এই আধুনিকায়ন এর সাথে তাল রেখে প্রত্যেককে নিজেকে গড়ে নিতে হবে। বাংলাদেশ পুলিশের শ্রদ্ধেয় ইন্সপেক্টর জেনারেল মহোদয় এর স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে প্রত্যেক পুলিশ সদস্যকে এগিয়ে আসতে হবে।

প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন যে, প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নাই। প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে সফলতার সাথে উত্তীর্ণ হয়ে জনগণকে মান সম্মত ও কাঙ্খিত সেবা প্রদান করবেন এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করে তিনি তাঁর বক্তব্য শেষ করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সাইফুদ্দিন শাহীন, উপ-পুলিশ কমিশনার (লজিস্টিক), উপ-পুলিশ কমিশনার (পিওএম) মনিরুল ইসলাম ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (বোয়ালিয়া বিভাগ), মোহাম্মদ রকিবুল ইসলাম হাসান ইবনে রহমান সহ উর্দ্বতন অফিসারগণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
ছবি ও নিউজ কপি করা নাজমুলের নিসেদ