• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১১:৩১ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
Tree plantation and Educational Contribution of Inner Wheel Dhaka Krishnochura Dist-345 সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ মাদ্রাসায় তাকওয়া ফাউন্ডেশনের ১ হাজার কোরআন বিতরণ ময়মনসিংহের নান্দাইলে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় নিখোঁজ এক বৃদ্ধ ভিক্ষুকের লাশ উদ্ধার প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তায়ন করা হয়েছে জেলা প্রশাসক এনামুল হক। নান্দাইল প্রেসক্লাব পদক ২০২২ পেলেন আজকের পত্রিকার সাংবাদিক মিন্টু মিয়া ডিমলা বাসীকে ”ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা” জানিয়েছেন ওসি লাইছুর রহমান তিতাসে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র মৎস্যজীবী জেলে সমিতির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল কুমিল্লা কলেজ থিয়েটারের একযুগ পূর্তিতে চাঁদ পালঙ্কের পালা মঞ্চায়ন বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হচ্ছে আরএমপি’র ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পুলিশ আপনার সেবায় সদা প্রস্তুত- করিমগঞ্জ থানার তদন্ত ওসি জয়নাল আবেদীন।

রাবিতে আগামী ৫০ বছর পর যেমন হবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ত্রি-মাত্রিক মডেল উন্মোচন

Reporter Name / ৮০ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার মোঃ পাভেল ইসলাম

শিক্ষার গুণগতমানের উৎকর্ষ সাধন ও সম্পদের যথোপযুক্ত ব্যবহার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ৫০ বছর মেয়াদী (২০২০-২০৭০) একটি মাস্টার প্ল্যান প্রণয়ন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গতকাল বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনের লবিতে স্থাপিত এই মাস্টার প্ল্যানে আগামী ৫০ বছর পর কেমন হবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস তার একটি ত্রি-মাত্রিক মডেল উন্মোচন করেন উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান। পরে তিনি মাস্টার প্ল্যানের গ্রন্থিত কপিটিরও মোড়ক উন্মোচন করেন।

 

সীমিত পরিসরের এই আয়োজনে অন্যদের মধ্যে উপ-উপাচার্য প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা, উপ-উপাচার্য ও মাস্টার প্ল্যান প্রণয়ন কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া, প্রক্টর ও ছাত্র-উপদেস্টা প্রফেসর মো. লুৎফর রহমান, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক ড. মো. আজিজুর রহমান, অনুষদ অধিকর্তা, হল প্রাধ্যক্ষ, বিভাগীয় সভাপতি, ইনস্টিটিউট পরিচালকসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিশিষ্ট শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, ১ অক্টোবর ২০২০ তারিখে অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ৫০১তম সভায় মাস্টার প্ল্যানটি অনুমোদিত হয়।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম মাস্টার প্ল্যান ১৯৬২ সালে প্রণীত হয়। নতুন মাস্টার প্ল্যানটিতে প্রথম মাস্টার প্ল্যানের ধারণাগুলোকে সমন্বিত রেখে যুগোপযোগী করা হয়েছে। বাংলাদেশের একটি খ্যাতনামা পরামর্শক প্রতিষ্ঠান এটি প্রণয়নে কারিগরী সহযোগিতা প্রদান করেছে। বর্তমান মাস্টার প্ল্যানটিতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের প্রায় ৭৫০ একর এলাকাকে পাঁচটি অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছে। এতে মূল তিনটি বিষয়কে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে অবকাঠামোগত উন্নয়ন, কৌশলগত এবং স্থানিক পরিকল্পনা। ১০ বছর মেয়াদী প্রথম পর্যায় (২০২০-২০৩০), ২০ বছর মেয়াদী দ্বিতীয় পর্যায় (২০৩১-২০৫০) ও আরেকটি ২০ বছর মেয়াদী তৃতীয় পর্যায়ে (২০৫১-২০৭০) মাস্টার প্ল্যানটি বাস্তবায়িত হবে।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category