• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০২:৫৯ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম

ডিমলার আরিফ আরমান একজন স্বপ্নবাজ

নূর মোহাম্মদ সুমন, নীলফামারী প্রতিনিধি / ১১৪ Time View
Update : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১

নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে উঠে আসা যুবক আরিফ আরমান। বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ আমির হোসেন (বিএসসি) এর সন্তান পুরো নাম মোঃ আরিফ সাদাত আরমান ওরফে আরিফ আরমান। সবাই আরিফ আরমান বলেই ডাকেন। যার সপ্ন ছিলো ক্রিকেটার হবেন তবে সঠিক দিক নির্দেশনা অভিভাবকহীনতা এবং সহযোগিতার অভাবে সেটা আর সম্ভব হয়ে উঠেনি। বিশেষ করে যার বাড়ি জেলা শহর থেকে প্রায় ষাট কিঃ মিঃ দূরে। তার কথায় উঠে আসা গল্প ২০০৪-৫ সালের কথা। ওই সময় এতো দূরের পথ নিয়মিত যাতায়াত করা মোটেই সহজ ছিলো না তার। এতো পথ পাড়ি দিয়ে বয়স ভিত্তিক ক্রিকেটের বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ করতে জেলাতে এসেও সঠিক তথ্যের অভাবে ভেন্যু খুঁজে না পেয়ে বাছাই পর্বে অংশগ্রহন করতে না পেরে চরম হতাশা নিয়ে বাড়ি ফিরতে হয়েছিল সেদিন। মূলত এভাবেই ক্রিকেটার হওয়ার সপ্নের সমাধি হয়েছে ! তবে ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেটের সাথেই লেগে আছে এবং ক্রিকেটই যার ধ্যান-ধারনা। ক্রিকেটার হতে না পারলেও সপ্ন পূরণ করেছেন ভিন্নভাবে। স্কুল জীবন থেকেই ধারাভাষ্যকার হিসেবে নিজেকে তিলেতিলে তৈরী করেছে। জেলা ক্রীড়া সংস্থাসহ জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে অসংখ্য টুর্নামেন্টে ধারাভাষ্য হতে দেখা গেছে। তবে ক্রিকেট শুধু নয় ফুটবলেও সমানভাবে ধারাভাষ্য দিয়েছে এই আরিফ আরমান। ২০১৫ সালে বিভাগীয় টুর্নামেন্টের মাধ্যমে ফুটবল ধারাভাষ্য শুরু করেন এবং ২০১৮ সালে ২১ সেপ্টেম্বর নীলফামারীর শেখ কামাল আর্ন্তজাতিক স্টোডিয়ামে বাংলাদেশের বসুন্ধরা কিংস এবং মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েনড ক্লাব এর ম্যাচের মাধ্যমে আর্ন্তজাতিক ফুটবল ধারাভাষ্যে হিসেবে যাএা শুরু হয়। একই বছর একই ভেন্যুতে ১৪ ফেব্রুয়ারী বসুন্ধরা কিংস বনাম রহমতগঞ্জ MFS এর ম্যাচের মাধ্যমে বিপিএল ফুটবলে ধারাভাষ্য ক্যারিয়ারের যাএা শুরু করেন। ২৮ মার্চ থেকে ০১এপ্রিল/২০১৯ সালে ভারতের মুম্বাইয়ে ভারত বনাম বাংলাদেশ জাতীয় হুইলচেয়ার ক্রিকেট দলের মধ্যে আর্ন্তজাতিক টুর্নামেন্টের মাধ্যমে ক্রিকেটেও আর্ন্তজাতিক ধারাভাষ্য ক্যারিয়ার শুরু হয়। আরিফ আরমান বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, উর্দুসহ বেশ কিছু ভাষায় ধারাভাষ্য দিয়ে থাকেন। তবে তার ভাষা শেখার একমাত্র উৎস ছিলো প্রবল ইচ্ছাশক্তি আর নিয়মিত বেতার শোনা, বিবিসি শোনা, ধারাভাষ্য রেকর্ড করে নিয়মিত চর্চা করা। এছাড়া, জাতীয় পর্যায়ে অসংখ্য টুর্নামেন্টে ধারাভাষ্য করার কৃতিত্ব রয়েছে তার। বিভিন্ন খেলাধুলার ধারাভাষ্যের পাশাপাশি সংগঠক হিসেবে দেশ-বিদেশে ইতিমধ্যে ব্যাপক আলোচিত পরিচিত অর্জনে সক্ষম হয়েছে। তবে তার এই পথ চলা মোটেও সহজ ছিল না। হাজারো প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে নিজেকে প্রস্তুত করেছেন। নিজে ক্রিকেটার হতে না পারার সেই দুঃখকে আজও বয়ে বেড়ান এবং নীরবে চোখের জল ফেলেন ! সেটিকে পুঁজি করে আগামী প্রজন্ম যাতে এমন সুবিধা থেকে বন্ধিত না হয় সেজন্য নিজ উদ্ধোগেই নিজের উপজেলা ডিমলায় ২০২০ সালে প্রতিষ্ঠা করেছেন Dimla Sports Academy -DSA. এখানে শুধু ক্রিকেটই নয় ফুটবলসহ অন্যান্য সব ধরনের খেলোয়াড় এবং সংগঠক তৈরী এবং টুর্নামেন্টের আয়োজন করার পরিকল্পনা। যারা জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবে। সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়নে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন উত্তরের সফল ক্রীড়া সংগঠন জেলা ক্রীড়া সংস্থা নীলফামারী। যার নেপথ্যের কারিগর বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক জনাব আরিফ হোসেন মুন। গত ২৩ অক্টোবর ২০২১ জেলা ক্রীড়া সংস্থা নীলফামারীর ক্রিকেট উপকমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন এই সপ্নবাজ আরিফ আরমান। একজন সংগঠক হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে জেলা ক্রীড়া সংস্থা নীলফামারীর এই স্বীকৃতি ভবিষ্যতে জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে বড় সাফল্যের অনুপ্রেরনা যোগাবে। এই স্বীকৃতি পাওয়ায় আবেগআপ্লুত কণ্ঠে আরিফ আরমান বলেন আমি জনাব আরিফ হোসেন মুন মহোদয়সহ জেলা ক্রীড়া সংস্থা নীলফামারীর সকলের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা, শ্রদ্ধা এবং বিশেষ ধন্যবাদ জানাতে চাই। ভবিষ্যতে একসাথে কাজ করার সুযোগ পেলে চেষ্টা থাকবে ভালো কিছুর মাধ্যমে সর্বোচ্চ পর্যায়ে কাজ করার এবং সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। ধারাভাষ্যের পাশাপাশি একজন সংগঠক হিসেবে গরীব দুঃখী মানুষের পাশে দাড়াতে ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল মাসে নিজ উদ্দোগে প্রতিষ্ঠা করেছেন সেচ্ছাসেবী সংগঠন Dimla Honours Club এটির মাধ্যমে বিনামূল্যে ছাএ/ছাএীদের মাঝে বিভিন্ন শিক্ষা বিষয়ক কার্যক্রম পরিচালনা, পুরষ্কার, শিক্ষা উপকরণ তুলে দেওয়া, বিভিন্ন শিক্ষা বিষয়ক কার্যকরি সহযোগিতা প্রদান করা হয়ে থাকে। তাছাড়া মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা, বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করাই মূল উদ্দেশ্যের পাশাপাশি গরীব, অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য শীতবস্ত্র বিতরণ, খাবার, দূর্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতা করাই অন্যতম উদ্দেশ্য। সামাজিক, সাংস্কৃতিক, জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক দিবসসহ অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে একঝাঁক শিক্ষার্থীর সমন্বয়ে পরিচালিত এই সংগঠনটি। এছাড়া সমাজের বিত্তবানদের সাথে নিয়ে নানাধরণের অনুঠানের আয়োজন করা হয়। শুধু তাই নয় বই পড়াকে আরও সহজ করতে, বইয়ের আলো সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে ২০১৯ সালে নিজ উদ্দোগে প্রতিষ্ঠা করেছেন অত্র এলাকার একজন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সাবেক প্রধান শিক্ষক (অবঃ) খগা খড়ি বাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় এর নামে “আমির হোসেন (বিএসসি) ডিজিটাল গ্রন্থগার এবং নীলফামারী এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন।” যেটি শিক্ষা বিস্তারের পাশাপাশি সামাজিক কার্যক্রম পালনের মাধ্যমে আর্থসামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে। এছাড়া দেশি-বিদেশি অসংখ্য এ্যাসোসিয়েশন, সংগঠন, ক্লাব, বোর্ড, সরকারি, বেসরকারি বিভিন্ন টিভি চ্যানেল, অনলাইন টিভি, অনলাইন পএিকা, ইউটিউব চ্যানেল, ম্যাগাজিন সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পৃক্ত থেকে কাজ করছেন নিয়মিত। ভবিষ্যতে সপ্ন দেখেন আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে নিজের প্রতিভা দিয়ে ধারাভাষ্য ক্যারিয়ারকে আরও সুদূর প্রসারী করবেন এবং দেশের প্রত্যন্ত এলাকার হাজারো সুবিধা বঞ্চিত, অবহেলিত খেলোয়াড় এবং সংগঠকদের মাধ্যমে জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে দেশের পতাকাকে গৌরবান্বিত করবেন ইনশাআল্লা

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

একটি পরিকল্পিত আদর্শ ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলের দোয়া প্রার্থী।