• মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৩:২৩ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
ফ্যাশনে এখন পোলো টি-শার্ট গভীর রাতে রাস্তায় সন্তান প্রসব ; কোলে তুলে নিলেন করিমগঞ্জ থানার তদন্ত-ওসি আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী কক্সবাজার ও বান্দরবানের ৩ মাদক কারবারী ইয়াবাসহ চট্টগ্রামে আটক যশোর যুবলীগের আয়োজনে আইসিইউ সরঞ্জাম প্রদান করেন সাবেক মেয়র রেন্টু ঠাকুরগাঁওয়ে ৫৭১ পিস ইয়াবা ও ১৪,৮৮৬ টাকা সহ মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেফতার বাগমারায় ইউবিসিসিএ এর নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত রাজ্জাক মোল্লা বাঘা থানা পুলিশের অভিযানে মাদকসহ আটক ৪ ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু কুষ্টিয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী বক্করের বিরুদ্ধে বোমা ফাটালেন এক আ’লীগ নেত্রী ময়মনসিংহের নান্দাইলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের তৃণমূল সভা অনুষ্টিত

নগরীতে রাস্তা ও ড্রেনের কাজের উদ্বোধন করলেন রাসিক মেয়র লিটন

Reporter Name / ২৪ Time View
Update : রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

মোঃ পাভেল ইসলাম প্রধান প্রতিবেদক

 রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৮ গ্রুপের কাজের মধ্যে মহানগরীর ১৯নং ওয়ার্ডে একটি গ্রুপের কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। ১৯নং ওয়ার্ডের ছোটবনগ্রাম প্রফেসরপাড়া এলাকায় রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। ১৯নং ওয়ার্ডে এ প্রকল্পের আওতায় ৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ৮৮টি রাস্তা (কার্পেটিং ও সিসি রোড) ও ড্রেন নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে রোববার দুপুরে ছোটবনগ্রাম ১২ রাস্তা মোড় হাসান মন্ডলের বাড়ী হতে ছোটবনগ্রাম ব্যাংক টাউন ব্রিজ পর্যন্ত ২ কোটি ৮৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ড্রেন নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন মেয়র। কাজের উদ্বোধনের পর দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় এবং মিষ্টি বিতরণ করা হয়। রাস্তা ও ড্রেনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী মহানগরীর ব্যাপক উন্নয়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্প বরাদ্দ দিয়েছেন। সেই প্রকল্পের আওতায় নগরীর সকল ওয়ার্ডে রাস্তা, ড্রেন সহ অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন করা হবে। প্রকল্পের কাজ শুরু হলো, আগামী আড়াই বছর এই কাজ চলমান থাকবে। মেয়র আরো বলেন, রাজশাহীকে একটি উন্নত, বাসযোগ্য ও দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সেরা শহরে পরিণত করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে রাজশাহী পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতায় দেশসেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছি। এই অর্জন ধরে রাখার পাশাপাশি রাজশাহীকে আরো সামনে দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে নগরবাসীর সহযোগিতা একান্তভাবে কামনা করছি। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন রাসিকের ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মাননীয় নগরপিতা খায়রুজ্জামান লিটন মহোদয় ১৯নং ওয়ার্ডে ব্যাপক উন্নয়নের জন্য সর্বোচ্চ অর্থ বরাদ্দ দিয়েছেন। মেয়র মহোদয়ের এই বরাদ্দকৃত অর্থ দিয়ে আমরা ওয়ার্ডবাসীর উন্নয়নে ৮৮টি রাস্তা ও ড্রেন যথাযথভাবে নির্মাণ করবো। আমরা আশা করি আগামীকে ১৯নং ওয়ার্ডবাসী উন্নয়নে অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হবে। মেয়র মহোদয়ের স্বপ্নের বাসযোগ্য ও উন্নত রাজশাহী মহানগরী গড়তে আমরা তাঁর নির্দেশনা মতো কাজ করে যাব। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শাহমখদুম থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ আকতারুল আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বাবু, প্রফেসর মিন্টু, মহানগর আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ শাহাবুদ্দিন, মহানগর আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও দৈনিক সানশাইন পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ইউনুস আলী, প্রফেসর আজিজুল ইসলাম, প্রফেসর বায়েজিদ বোস্তামী, প্রফেসর জহুর আলী, ১৯নং ওয়ার্ড উত্তর আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ হাসেন মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক বাবর আলী, প্রকল্পের পরিচালক নুর ইসলাম তুষার, সহকারী প্রকৌশলী সৈয়দ সাইদ আহম্মেদ, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোকাম্মেল আলী, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আলমতি শারাফুদ্দিন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী তাসনিম আরা, মহানগর যুবলীগের সহ-সভাপতি মোখলেসুর রহমান মিলন, ১৯নং ওয়ার্ড সচিব নুর ইসলাম ফয়সাল, নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান মাসুদ হাইটেক ইঞ্জিনিয়ার ও তানভীর কনস্ট্রাকশন লিমিটেড জেভি। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ার উত্তম মিত্রা, প্রজেক্ট ম্যানেজার রাইসুল ইসলাম সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৮টি গ্রুপের কাজের মধ্যে প্যাকেজ-৫ এর আওতায় ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে ২২ কোটি ৬৮ লাখ ১২ হাজার ১১২ টাকা, প্যাকেজ-৬ এর আওতায় ৪,৫,৬ ও ৮নং ওয়ার্ডে ২৩ কোটি ৬৭ লাখ ৯৩ হাজার ৮৮৪ টাকা, প্যাকেজ-৭ এর আওতায় ২৩ কোটি ৬৫ লাখ ৬৪ হাজার ৮৬০ টাকা, প্যাকেজ-৮ এর আওতায় ১০, ১৪, ১৫ ও ১৬নং ওয়ার্ডে ২৪ কোটি ২৭ লাখ ২২ হাজার ৮১১টাকা, প্যাকেজ-৯ এর আওতায় ১৭, ১৮ ও ১৯নং ওয়ার্ডে ২৪ কোটি ৪৪ লাখ ৬২ হাজার ২৪৩ টাকা, প্যাকেজ-১০ এর আওতায় ২০,২১,২২ , ২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে ২২ কোটি ৭ লাখ ২৬ হাজার ৫৪৭ টাকা, প্যাকেজ-১১ এর আওতায় ২৬,২৭ ও ২৮ নং ওয়ার্ডে ২৪ কোটি ৮ লাখ ৫১ হাজার ২২৮ টাকা, প্যাকেজ ১২ এর আওতায় ২৫,২৯ ও ৩০নং ওয়ার্ডে ২২ কোটি ৬৩ লাখ ৩৭ হাজার ৩৮৫ টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

একটি পরিকল্পিত আদর্শ ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলের দোয়া প্রার্থী।