• বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৩১ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
রাণীশংকৈল থানার এসআই হাফিজের বিশেষ অভিযানে ৭৬ পিছ ইয়াবাসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ঠাকুরগাঁওয়ে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ পালংখালী গয়ালমারা ইয়াং স্টার সোসাইটির ৪র্থতম নির্বাচনে সভাপতি বেলাল উদ্দিন ও সাধারন সম্পাদক সেলিম উদ্দীন নির্বাচিত হয়েছেন। নান্দাইলে অটো রিক্সা চালক কে হত্যা করে ছিনতাইয়ের ঘটনায় ৪ জন আটক রাজশাহীতে ছিনতাইয়ের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার শাবির ঘটনায় রাবি শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচি রাজশাহীতে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবী,আটক ১ রাজশাহীতে ১২ বছরের কিশোরী ধর্ষণ-৩ জনের নামে থানায় মামলা শীতার্তের ঘরে গিয়ে শীতবস্ত্র দিয়ে আসছে “হেল্প চাঁপাই” নেত্রকোণার পূর্বধলায় মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

ঝিনাইদহে শিশু শিক্ষার্থীদের নগদ একাউন্ট থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র

Reporter Name / ৪৪ Time View
Update : বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ-

“আমি শিক্ষা অফিসার বলছি। আপনার সন্তান উপবৃত্তির টাকা কম পেয়েছে। দ্রæত পিন নাম্বার দেন, এবার পুরো টাকা পাঠিয়ে দেব”। প্রতারকরা এমন কথা বলে প্রইমারিতে পড়ুয়া শিশু শিক্ষার্থীদের উপ-বৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত কয়েক দিনে ঝিনাইদহ জেলার শতাধীক শিক্ষাথীর নগদ একাউন্ট থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। গ্রামের সহজ সরল গৃহবধুরা (শিশু শিক্ষর্থীর মা) নগদ একাউন্টের গোপন পিন নাম্বার দিয়ে প্রতারণরার শিকার হয়েছেন। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পশ্চিম লক্ষিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্রী জোহা, একই স্কুলের ক্লাস ওয়ানের ছাত্র আরজু ও তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী চাঁদনীর নগদ একাউন্ট থেকে সোমবার সাড়ে চার’শ টাকা করে হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। লক্ষিপুর গ্রামের গ্রাম্য চিকিৎসক ডাঃ মিজানুর রহমান খবরের সত্যতা নিশ্চত করে জানান, তার এলাকার একাধিক প্রাইমারির শিক্ষার্থীর নগদ একাউন্টের টাকা প্রতারকরা হাতিয়ে নিয়েছে। তিনি জানান, বেশির ভাগ হতদরিদ্র ও গরীব ছাত্র ছাত্রীরা প্রতারণার শিকার হচ্ছেন। গান্না ইউনিয়নের চন্ডিপুর প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলাম জানান, তার স্কুলের জাকারিয়াসহ একাধিক শিশু শিক্ষার্থীর নগদ একাউন্ট থেকে প্রতারকরা টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে তিনি জানতে পেরেছেন। তিনি বলেন স্কুল খোলা থাকলে আমরা ক্লাসে ক্লাসে শিক্ষার্থীদের সচেতন করতে পারতাম। কিন্তু সে সুযোগ না থাকায় শিশু শির্ক্ষীরা অহরহ প্রতারিত হচ্ছে। এছাড়া জেলার বিভিন্ন উপজেলার গ্রামে গ্রামে প্রতারকরা হানা দিয়ে গোপন পিন সংগ্রহ করে উপ-বৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার জাহাঙ্গীর আলম জানান, নগদ একাউন্ট খোলার সময় আমরা শিশু ও তাদের অভিভাবকদের সচেতন করে দিই। এছাড়া নগদের কর্মীরাও গোপন পিন নাম্বার কাউকে দিতে নিষেধ করেন। তাপরও এমন প্রতারিত হওয়ার খবর দুঃখজনক। তিনি বলেন অধিক সচেতনতার জন্য এ বিষয়ে আমি আজই উপজেলা শিক্ষা অফিসারদের নির্দেশনা দেব।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category