• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০২:০০ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম

পরিমাপে কম দেয়ায় রাজশাহীর দুই পেট্রোল পাম্পকে জরিমানা

Reporter Name / ৫০ Time View
Update : সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১

মো : তাওহীদ হাসান ( মহানগর ) প্রতিনিধি

পরিমাপে কম দেয়া রাজশাহী মহানগরীতে দুটি পেট্রোল পাম্পকে জরিমানা করা হয়েছে। আজ সোমবার বিএসটিআই, রাজশাহী ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এর যৌথ উদ্যোগে এ অভিযান চালানো হয়। নগরীর কুমারপাড়ায় অবস্থিত গুলগোফুর ও পবার বাগসারা এলাকায় অবস্থিত পবা ফিলিং স্টেশনকে এ জরিমানা করা হয়। অভিযানে পাম্পে তেল পরিমাপে কম প্রদান করায় গুলগোফুর পেট্রোলিয়ামকে ৫০,০০০ টাকা ও পবা ফিলিং স্টেশন, বাগসারা, পবা, রাজশাহীকে ২০,০০০ টাকা জরিমানা করা হয়।ওজন ও পরিমাপ মানদন্ড আইন-২০১৮ আওতায় এ জরিমানা করা হয়। ক্রটিযুক্ত ডিসপেন্সিং ইউনিটসমূহ তাৎক্ষণিক বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। অভিযান পরিচালনা করেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মাসুম আলী, সহকারী পরিচালক এবং বিএসটিআই’র শাহ্ আলম পলাশ খাঁন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও ৭ তারিখে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে ৪টি নিয়মিত মামলায় ৯০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়ের মাধ্যমে মামলাগুলো আদালতে নিষ্পত্তি করা হয়। জনস্বার্থে বিএসটিআই’র এরূপ অভিযান অব্যাহত থাকবে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গুলগোপুর পেট্রোল পাম্পটি মহানগরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা কুমারপাড়ায় অবস্থিত হওয়ার কারণে প্রতিদিন শত শত মানুষ তেল কেনেন। এখানে পুলিশের ব্যবহৃত গাড়ী ও সরকারী অফিসের গাড়ীতেও তেল নেয়া হয়। অনেক ক্রেতাই প্রশাসনের গাড়ীতে তেল নেয়া দেখে নির্ভয়ে তেল কেনেন। কিন্ত এ পেট্রোল পাম্পটির ডিসপেন্সিং ইউনিট ক্রটিযুক্ত। মাপে তেল কম দেয়া হতো। ভোক্তা অধিকার ও বিএসটিআই যৌথ অভিযান পরিচালনা করে গুলগোপুর পেট্রোল পাম্পকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে। এ পাম্পের পেট্রোল ও অকটেন পরিমাপে কম দেয়া হতো। অভিযানে থাকা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাসুম আলী বলেন, লিটারে তেল কম দেয়া হয়েছে। কতদিন ধরে কম দেয়া হয়েছে তা জানা যায়নি। তাদের সর্বোচ্চ জরিমানা করা হয়েছে। তাদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। এদিকে, স্থানীয় এক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, যেখান থেকে পুলিশ প্রশাসনসহ সরকারী গাড়ীর তেল নেয়া হয় সেই পেট্রোল পাম্পে কি করে তেল কম দেয়ার সাহস পেল তারা। বিষয়টি আরো ভালোভাবে খতিয়ে দেখা দরকার। ভোক্তা অধিকারের রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক হাসান মারুফ বলেন, অধিদপ্তরে তাদের ডাকা হয়েছে। কেন তারা এমন করল সে বিষয়টি জানতে চাওয়া হয়েছে। ক্রটিযুক্ত ডিসপেন্সিং ইউনিট বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আমার জানামতে সেখান থেকে আরএমপি ও অন্যান্য সরকারী অফিসের গাড়ীর তেল নেয়া হয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দুস এর কাছে বিষয়টি অবহিত করলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা ছিলনা। খোঁজ নিয়ে দেখা হবে।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

একটি পরিকল্পিত আদর্শ ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলের দোয়া প্রার্থী।