• রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০৭ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

করিমগঞ্জ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে সচেতনতা মুলক লিফলেট ও মাক্স বিতরন

Reporter Name / ৮২ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১

মোঃ জনি হোসেন, করিমগঞ্জ প্রতিনিধিঃ           মাস্ক পরার অভ্যাস,করোনামুক্ত বাংলাদেশ’এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে প্রাণঘাতী মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করিমগঞ্জ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে করিমগঞ্জ উপজেলায় পুলিশ হেড কোয়ার্টার বিভিন্ন দোকান পাট বিভিন্ন মোড়ে সড়কে যানবাহনের যাত্রী রিকশা চালক সাধারন পথচারী ও বিভিন্ন হাট বাজারে মাক্স ও জনসচেতনা মুলক লিফলেট বিতরন করেছে করিমগঞ্জ থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১এপ্রিল) সকালে করিমগঞ্জ  থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মমিনুল ইসলাম এর নেতৃত্বে করিমগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন রাস্তার  মোড়ে সড়কের মাস্ক বিহীন বিভিন্ন দোকানী ওপুলিশ হেড কোয়ার্টার যানবাহনের যাত্রী রিকশা চালক সাধারন পথচারী ও বিভিন্ন হাট বাজারে পথচারীদের মাঝে সচেনতামুলক মাক্স ও জনসচেতনা মুলক লিফলেট বিতরন করা হয়েছে।

এ সময় করিমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মমিনুল ইসলাম বলেন,সাম্প্রতিক সময়ে সারা দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে।কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সম্মুখ সারির যোদ্ধা হিসেবে শুরু থেকেই নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন করিমগঞ্জ থানা পুলিশ বাহিনী সম্প্রতি সময়ে আবারও ছড়িয়ে পড়েছে বৈশ্বিক মহামারি করোনা।তাই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রকোপ মোকাবিলায় জেলা পুলিশের দিক নির্দেশনা মোতাবেক করিমগঞ্জ উপজেলায় জনসচেতনতা মূলক প্রচার-প্রচারনা চালাচ্ছে করিমগঞ্জ থানা পুলিশ এসময় জনসাধারণের মাঝে মাস্ক ও  জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করছি।জনস্বার্থে পুলিশের এই প্রচারণামূলক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মমিনুল ইসলাম বলেন করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে নিরাপদ থাকতে সাবান পানি ব্যবহারের সুযোগ না থাকলে হাত ধোয়ার ক্ষেত্রে ভালো মানের স্যানিটাইজার ব্যবহার,হাত না ধুয়ে নাক, মুখ ও চোখ স্পর্শ না করা,খুব বেশি প্রয়োজন না হলে নাক,মুখ চোখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকা, হাঁচি বা কাশি দেয়ার সময় যিনি হাঁচি বা কাশি দিচ্ছেন তার থেকে কমপক্ষে তিন ফুট দূরে থাকা,নিজে হাঁচি বা কাশি দেয়ার সময় টিস্যু দিয়ে বা কনুই ভাঁজ করে নাক মুখ ঢাকা ব্যবহৃত টিস্যুটি তাৎক্ষণিক ঢাকনা যুক্ত ময়লার ঝুড়িতে ফেলে দেওয়া।

শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় করমর্দন বা আলিঙ্গন করা থেকে বিরত থাকা,গণপরিবহন ব্যবহারের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকা বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া গণ সমাবেশ স্থলে না যাওয়া,অসুস্থ বোধ করলে বাড়িতে অবস্থান এবং জ্বর ও কাশির সঙ্গে শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।করোনাভাইরাসের লক্ষণ সম্পর্কে ওই লিফলেটে বলা হয়েছে।

আক্রান্ত ব্যক্তির সাধারণ জ্বর ক্লান্তি শুকনো কাশি দেখা দেয়। কারও কারও ক্ষেত্রে গায়ে ব্যথা,নাক বন্ধ, নাক দিয়ে পানি পড়া,গলা ব্যথা ডায়রিয়া হতে পারে।এসব লক্ষণ শুরুতে খুব হালকা মাত্রায় দেখা যেতে পারে,যা ধীরে ধীরে বাড়তে পারে। আবার কারও কারও ক্ষেত্রে লক্ষণ নাও দেখা যেতে পারে বলে লিফলেটে উল্লেখ করা হয়েছে।এক সঙ্গে ভাইরাস সংক্রমণ রোধে আক্রান্ত ব্যক্তির মাস্ক ব্যবহার করা উচিত উল্লেখ করে ব্যবহৃত মাস্ক ঢাকনাযুক্ত ঝুড়িতে ফেলার জন্য বলা হয়েছে। সুস্থ ব্যক্তির মাস্ক ব্যবহার আবশ্যিক নয় উল্লেখ করে পুলিশের বিতরণ করা লিফলেটে বলা হয়েছে।

মাস্ক ও লিপলেট বিতরণের সময়ে উপস্থিত ছিলেন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মমিনুল ইসলাম ইসলাম, করিমগঞ্জ থানার তদন্ত (ওসি) আনোয়ার,এসআই আমিরুল মোমেনীন, এসআই অজিত বর্মন,এসআই ফখরুল হাসান ফারুক,সহ করিমগঞ্জ থানার সকাল অফিসার ইনচার্জ প্রমূখ।ইন্সপেক্টর ও পুলিশ বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

একটি পরিকল্পিত আদর্শ ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলের দোয়া প্রার্থী।