• মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৩:১৮ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
ফ্যাশনে এখন পোলো টি-শার্ট গভীর রাতে রাস্তায় সন্তান প্রসব ; কোলে তুলে নিলেন করিমগঞ্জ থানার তদন্ত-ওসি আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী কক্সবাজার ও বান্দরবানের ৩ মাদক কারবারী ইয়াবাসহ চট্টগ্রামে আটক যশোর যুবলীগের আয়োজনে আইসিইউ সরঞ্জাম প্রদান করেন সাবেক মেয়র রেন্টু ঠাকুরগাঁওয়ে ৫৭১ পিস ইয়াবা ও ১৪,৮৮৬ টাকা সহ মাদক ব্যাবসায়ী গ্রেফতার বাগমারায় ইউবিসিসিএ এর নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত রাজ্জাক মোল্লা বাঘা থানা পুলিশের অভিযানে মাদকসহ আটক ৪ ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু কুষ্টিয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী বক্করের বিরুদ্ধে বোমা ফাটালেন এক আ’লীগ নেত্রী ময়মনসিংহের নান্দাইলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের তৃণমূল সভা অনুষ্টিত

সরকারি ভূমি দখল দণ্ডনীয় অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে: ভূমিমন্ত্রী

ডেক্স নিউজ || সংবাদ ২৪ ঘন্টা.কম / ৩৭ Time View
Update : সোমবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২০

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জানিয়েছেন, সরকারি জমি দখলকে দণ্ডনীয় ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করে শিগগিরই আইন সংশোধন করা হচ্ছে। সোমবার (১৬ নভেম্বর) ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অনলাইনভিত্তিক ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যার পাইলটিং (২য় পর্যায়) কার্যক্রম’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান। ‘হাতের মুঠোয় ভূমিসেবা’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এ কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয়ের নিয়োগবিধির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে, এ তথ‌্য জানিয়ে সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) মাধ্যমে নন-ক্যাডার পদমর্যাদার কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হবে, যেন মাঠ পর্যায়ের কাজে গতি আসে। আমরা ভূমি সেক্টরে টেকসই সিস্টেম এবং সক্ষমতা উন্নয়নের ওপর জোর দিচ্ছি, যাতে ভূমি খাতের উন্নয়ন দৃঢ় ভিত্তির ওপর দাঁড়ায়। জনগণ যেন ভূমি অফিসে না এসেই বেশিরভাগ সেবা গ্রহণ করতে পারেন, আমরা সে উদ্দেশ্যেই কাজ করছি।’ বিশেষ অতিথি ভূমি সচিব মো. মাক্ছুদুর রহমান পাটওয়ারী বলেন, ‘উপমহাদেশে কালেক্টরেট ব্যবস্থার গোড়াপত্তনের প্রায় ২৪৭ বছর পর ভূমি উন্নয়ন কর তথা জমির খাজনা গ্রহণের সিস্টেম বদলাচ্ছে ভূমিমন্ত্রীর নেতৃত্বে।’ ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. ইয়াকুব আলী পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন—চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ, জামালপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক এবং গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা। এ সময় চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যারের প্রথম পর্যায়ের পাইলটিং কার্যক্রম পরিচালনায় তার অভিজ্ঞতার কথা জানান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভূমি মন্ত্রণালয় ও ভূমি সংস্কার বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। পার্বত্য চট্টগ্রামের জেলাগুলো ব্যতীত ৬১ জেলার জেলা প্রশাসকসহ মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে অংশ নেন। ৬১টি জেলার ৪৮২টি উপজেলা/সার্কেল/মেট্রো থানা ভূমি অফিস থেকে একটি করে মোট ৪৮২টি পৌর/ইউনিয়ন ভূমি অফিসের এক বা একাধিক মৌজাকে ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যার পাইলটিং কার্যক্রমের আওতায় আনা হবে। ভূমি সংস্কার বোর্ড এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। উল্লেখ্য, দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ ডিসেম্বরে শুরু করার কথা থাকলেও তা এক মাস আগেই শুরু করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

একটি পরিকল্পিত আদর্শ ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলের দোয়া প্রার্থী।