• বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৫ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা প্রশাসকের দেওয়া গরু পেলেন গড়েয়ার দরিদ্র তেলী খর্গ মোহন সেন রাজশাহীতে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উপলক্ষে কর্মশালা অনুষ্ঠিত নগরীতে ডিবি পুলিশের অভিযানে ৫০০ গ্রাম গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক ১৭ মাস পর রুয়েটের হল খুলছে বৃহস্পতিবার ৪০তম বিসিএস; দ্বিতীয় ধাপের মৌখিক পরীক্ষার সূচি প্রকাশ ৪৩তম বি.সি.এস. পরীক্ষা-২০২০ এর প্রিলিমিনারি টেস্টে আরএমপি’র নিষেধাজ্ঞা চর মাজারদিয়া সীমান্তে পড়ে আছে বাইক রাইডারের গুলিবিদ্ধ লাশ সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাবাদের কোন প্রকার রেহায় নেই কেজিডিসিএল ঠিকাদার- গ্রাহক ঐক্য পরিষদের মতবিনিময় সভা মাদক ওদুর্নীতি দমনের চ্যালেঞ্জ নিয়ে করিমগঞ্জ থানার-ওসি হলেন শামছুল আলম সিদ্দিকী

অনলাইন গেমে আসক্ত তরুণরা ॥ বন্ধের দাবি

DeenerNosihot.com / ৫৫ Time View
Update : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১

 অনলাইন  ভিত্তিক সকল গেম নিষিদ্ধের দাবি উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গণহারে স্ট্যাটাস দিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে ছাত্র ও তরুন সমাজকে রক্ষায় জরুরিভাবে এ দাবি বাস্তবায়ন করতে সরকারকে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য দাবি করেছেন ফেসবুক ব্যবহারকারী অভিভাবকরা। ফেসবুকে অনুসন্ধান চালিয়ে দেখা গেছে, ফেসবুক ব্যবহারকারীরা গেম বন্ধ করতে আগ্রহের কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন, তাদের সন্তানরা এখন পড়াশুনা বাদ দিয়ে সর্বদা অনলাইন গেমে আসক্ত হয়ে পরেছে। করোনার মহামারির কারণে চলমান লকডাউনের এ সময়েও সন্তানরা অভিভাবকদের অবাধ্য হয়ে স্মার্টফোনে ইন্টারনেট ভিত্তিক গেমে ব্যস্ততা দেখাচ্ছে। অসংখ্য অভিভাবকরা জানিয়েছেন, তাদের সন্তানরা এতোটাই অনলাইন গেমে আসক্ত যে, বাবা-মা ও স্বজনদের সাথে রুঢ় আচারণ করে বসছে। বরিশাল নগরীর বাসিন্দা শিউলী আক্তার নামের এক অভিভাবক বলেন, তাদের বাসার সামনের রাস্তা ও বাগানে উঠতি বয়সের তরুন-যুবকরা সারিবদ্ধভাবে বসে অনলাইন ভিত্তিক গেমে মত্ত থাকছে। পড়াশুনাতো দুরের কথা, বাসার টুকিটাকি কাজেও তাদের সহযোগিতা পাওয়া যায়না। কেউ কেউ এতোটাই আসক্ত যে অভিভাবকদের সাথে খারাপ আচারনও করছে। অনুরুপ তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন মামুনুর রশিদ নামের এক অভিভাবক। তিনি অনলাইন ভিত্তিক সকল গেম বন্ধের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। এছাড়া একাধিক ব্যক্তি এই গেমের নেতিবাচক প্রভাবেব কথা তুলে ধরে দ্রুত অনলাইন ভিত্তিক সকল গেম বন্ধ করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ করেন। বিশেষ অনুসন্ধানে জানা গেছে, বর্তমানে বুস্টার বেট নামের একটি ভয়ঙ্কর জুয়ার গেমের ছোবলে পরেছে অধিকাংশ যুবসমাজ। মোবাইল ফোনে একটি বুস্টার বেট নামের সফটওয়্যার ডাউনলোড করে এই গেম খেলে ধ্বংসের পথে চলে যাচ্ছে অধিকাংশ যুবসমাজ। রাতারাতি কোটিপতি হওয়ার স্বপ্নে বিভোর জুয়ার নেশায় অনেক যুবক ইতোমধ্যে হয়েছেন সর্বশান্ত। সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) বরিশাল জেলা শাখার সভাপতি প্রফেসর শাহ সাজেদা জনকণ্ঠকে বলেন, তরুন ও যুব সমাজের মেধার সুষ্ঠু বিকাশের লক্ষ্যে এবং তাদের পড়াশুনায় মনযোগী করে তোলার ক্ষেত্রে এসব অনলাইন ভিত্তিক গেম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। এমনকি সন্তানদের বিপদগামীও করেছে। যার বাস্তব প্রমান রয়েছে সম্প্রতি সময়ের অনলাইন ভিত্তিক ব্লু হোয়েল গেম। তাই দ্রুত বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সরকারের আইসিটি মন্ত্রণালয় উদ্যোগ গ্রহণ করে বাংলাদেশে অনলাইন ভিত্তিক গেম বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আমি শতভাগ বিশ্বাস করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

একটি পরিকল্পিত আদর্শ ওয়ার্ড গড়ে তোলার লক্ষ্যে সকলের দোয়া প্রার্থী।